মনির থেকে হয়েছেন গোল্ডেন মনির(Golden Monir)

বাসায় বিদেশি মুদ্রা,অবৈধ মাদক এবং অবৈধ অস্ত্র রাখার কারণে মনির হোসেন/গোল্ডেন মনিরকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ২০ নভেম্বর শুক্রবার শহরের বাড্ডা এলাকার ১৩ নাম্বার রোডের ৪১ নাম্বার বাড়িতে র‌্যাব অভিযান চালায়।

র‌্যাব জানিয়েছেন,মনির নব্বই দশকের দিকে সেলসম্যান হিসেবে নারায়ণগঞ্জের একটি কাপড়ের দোকানে কাজ করতেন। এর কিছু দিন পর বা সময়ের ব্যবধানে মনির স্বর্ণচোরাচালানির সাথে জড়িয়ে পরেন। তার পর থেকেই সে নাম ধারণ করে গোল্ডেন মনির।এর মধ্যে মনির হয়ে উঠেছে অঢেল সম্পদ এবং অসংখ্য প্লটের মালিক।

র‌্যাবের অভিযান শেষে জানা গেছে,মনিরের বাসা থেকে ৪ লিটার বিদেশি মদ,৬৬০ টি থাই বাথ,১০ ইউএই দিলাম,৫২০ ইন্ডিয়ান রুপি,সিঙ্গাপুরী এক হাজার ডলার,২০ হাজার ৫০০ সৌদি রিয়াল,৫০১ ইউএস ডলার,জাপানি ২ লাখ ৮০ হাজার ইয়েন,মালেশিয়ান ৯২ ইঙ্গিত,হংকংয়ের ১০ ডলার,৩২ টি নকল সিল,১ টি বিদেশি পিস্তল ও ৪ টি গুলি জব্দ করা হয়েছে।

রাজউকের ৭০ টি ফ্ল্যাটের কাগজ পত্র আইনবহিরভূতভাবে রাখার কারণে রাজউক কর্তৃপক্ষ মনিরের নামে একটি মামলা দায়ের করেন যা এখনও চলমান রয়েছে।২০০১ সালে মনির তখনকার প্রভাবশালী মন্ত্রী,রাজউক কর্মকর্তা ও গণপূর্ত কর্মকর্তাদের সাথে সম্পর্ক তৈরি করে শহরে ভূমি জালিয়াতি শুরু করে।
أحدث أقدم